চট্টগ্রাম   বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২  

শিরোনাম

মোমেন-ব্লিঙ্কেন আলোচনায় আরও যা ছিল 

ঢাকা অফিস ::    |    ১২:৩৫ পিএম, ২০২২-০৪-০৬

মোমেন-ব্লিঙ্কেন আলোচনায় আরও যা ছিল 

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্টনি ব্লিঙ্কেন ও ড. এ কে আবদুল মোমেনের মধ্যকার দ্বিপাক্ষিক বৈঠকে বাংলাদেশে বাণিজ্য ও বিনিয়োগ বৃদ্ধি, র‍্যাবের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার ও বঙ্গবন্ধুর খুনি রাশেদ চৌধুরীকে হস্তান্তরসহ একাধিক বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। সোমবার (৪ এপ্রিল) যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে দেশটির পররাষ্ট্র দপ্তরে দুদেশের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান শেষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠক শেষে গণমাধ্যমের সঙ্গে আলাপকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল মোমেন বলেন, ব্লিঙ্কেন বলেছেন ‘যুক্তরাষ্ট্র ও বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরদারে’ ওয়াশিংটন ঢাকার সঙ্গে একত্রে কাজ করতে ইচ্ছুক।

ব্লিঙ্কেন আরও বলেছেন, বাংলাদেশ উন্নয়নের মডেল হয়ে উঠেছে। ওয়াশিংটন দুদেশের মধ্যে অংশীদারিত্ব জোরদার করতে আগামী ৫০ বছর একসঙ্গে কাজ শুরুর অপেক্ষায় রয়েছে। মোমেন বলেন, বৈঠকে জিএসপি সুবিধা পুনর্বহাল, রোহিঙ্গা ইস্যু, ইন্দো-প্যাসিফিক কৌশল, জলবায়ু পরিবর্তন ও বাংলাদেশের নির্বাচন প্রক্রিয়াসহ অন্যান্য বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। পররাষ্ট্রমন্ত্রী যুক্তরাষ্ট্রকে র‍্যাবের ওপর নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, এই এলিট ফোর্সটি বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাস দমন এবং মাদক পাচার রোধে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করেছে।

গত চার মাসে র‍্যাবের হাতে কোনো হত্যাকান্ড ঘটেনি জানিয়ে মন্ত্রী বলেছেন, র‍্যাব হয়তো কখনো কখনো কিছু বাড়াবাড়ি করেছে। কিন্তু জবাবদিহিতার জন্য তাদের একটি নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। যারা অন্যায় করেছে তাদের বিরুদ্ধে সরকার ব্যবস্থা নিয়েছে। বাংলাদেশে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের সাবেক রাষ্ট্রদূত জেমস মরিয়ার্টি র‍্যাবের ভূমিকার প্রশংসা করেছেন এবং এটিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এফবিআইয়ের সঙ্গে তুলনা করেছেন বলেও জানান মোমেন। ব্লিঙ্কেনও গত চার বছরে র‍্যাবের কর্মকাণ্ডে সন্তোষ প্রকাশ করেছে জানিয়ে তিনি বলেন, আমি খুব আশাবাদী যে এই নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার করা হবে।

এদিকে, একজন খুনিকে যুক্তরাষ্ট্রের আশ্রয় দেওয়া উচিৎ নয় বলে বৈঠকে মন্তব্য করেছেন মোমেন। তিনি বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু হত্যাকান্ডের দায়ে দণ্ডপ্রাপ্ত খুনি রাশেদ চৌধুরীকে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া ওয়াশিংটনকে শেষ করতে হবে। ড. মোমেন বাংলাদেশের অবকাঠামো, আইটি ও ফার্মাসিউটিক্যালস খাতে বিনিয়োগে বৈচিত্র্য আনতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, মার্কিন বিনিয়োগের ৯০ শতাংশ জ্বালানি ও বিদ্যুৎ খাতে। আমি চাই তারা অন্যান্য খাতেও বিনিয়োগ করুক।

‘বাংলাদেশে সাত লাখ তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ রয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র ওষুধ খাতে বিনিয়োগ করলে সাশ্রয়ী মূল্যে তারা বাংলাদেশ থেকে ওষুধ পেতে পারে।’ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশে বিনিয়োগ বাড়ালে সেখানে যুক্তরাষ্ট্রের উপস্থিতি বাড়বে যা ওয়াশিংটনকে নিরাপদ ইন্দো-প্যাসিফিকের উদ্বেগ নিরসনে সাহায্য করবে। মোমেন বলেন, আমি বলেছিলাম যে, আমরা একটি মুক্ত, অন্তর্ভুক্তিমূলক, উন্মুক্ত ও সুরক্ষিত ইন্দো-প্যাসিফিক অঞ্চল চাই। এর জবাবে ব্লিঙ্কেন বলেছেন, মার্কিন পক্ষ এই বিষয়গুলো ইতিবাচকভাবে বিবেচনা করবে।

২০১৩ সাল থেকে স্থগিত মার্কিন বাজারে বাংলাদেশী পণ্যের জিএসপি সুবিধার বিষয়টিও বৈঠকে তুলে ধরেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এ বিষয়ে তিনি বলেন, বাংলাদেশে শ্রম পরিস্থিতির আরও উন্নতি হলে যুক্তরাষ্ট্র জিএসপি সুবিধা পুনঃস্থাপন করবে। মোমেন ব্লিঙ্কেনকে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে মিয়ানমারের সহিংসতাকে গণহত্যা হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ জানিয়েছেন। রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে যুক্তরাষ্ট্রকে আসেম ও কোয়াড সদস্যদের সঙ্গে কাজ করার আহ্বানও জানিয়েছেন তিনি।

ডা. মোমেন একটি স্বচ্ছ ও স্বাধীন নির্বাচন কমিশনের অধীনে বাংলাদেশের অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন পদ্ধতি সম্পর্কে ব্লিঙ্কেনকে অবহিত করেছেন। তিনি তার প্রতিপক্ষকে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর থেকে বাংলাদেশের বিভিন্ন পর‍্যায়ে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন হচ্ছে। এদিকে, ঢাকা-নিউইয়র্ক-ঢাকা রুটে সরাসরি বিমানের ফ্লাইট চালু করার জন্য ব্লিঙ্কেনকে উদ্যোগ নেওয়ারও আহ্বান জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। একই সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে সুবিধাজনক সময়ে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানিয়েছেন তিনি।

বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব আলম হানিফ, নাইম রাজ্জাক, পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (পশ্চিম) শাব্বির আহমদ চৌধুরী, যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শহিদুল ইসলাম ও পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক (আমেরিকা) তৌফিক ইসলাম শাতিল প্রমুখ।

রিটেলেড নিউজ

 পদ্মা সেতু দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনৈতিক লাইফ লাইন: স্পিকার 

 পদ্মা সেতু দক্ষিণাঞ্চলের অর্থনৈতিক লাইফ লাইন: স্পিকার 

ঢাকা অফিস :: : পদ্মা সেতু দেশের দক্ষিণাঞ্চলের মানুষের জন্য অর্থনৈতিক লাইফ লাইন রূপে কাজ করবে বলে জানিয়েছেন জাতী...বিস্তারিত


‘দেশে কোরবানির পশু পর্যাপ্ত, বিদেশ থেকে আনার দরকার নেই’ 

‘দেশে কোরবানির পশু পর্যাপ্ত, বিদেশ থেকে আনার দরকার নেই’ 

ঢাকা অফিস :: : প্রাণিসম্পদ উৎপাদনে দেশে বৈপ্লবিক পরিবর্তন এসেছে বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী শ ম র...বিস্তারিত


বাংলাদেশের কৃষিখাতের আধুনিকায়নে কাজ করতে আগ্রহী এফএও

বাংলাদেশের কৃষিখাতের আধুনিকায়নে কাজ করতে আগ্রহী এফএও

ঢাকা অফিস :: : কৃষিখাতের আধুনিকায়ন ও উৎপাদন বাড়াতে জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) বাংলাদেশের সঙ্গে কাজ কর...বিস্তারিত


সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ৪০২২ হজযাত্রী

সৌদি আরবে পৌঁছেছেন ৪০২২ হজযাত্রী

ঢাকা অফিস :: : শুক্রবার (১০ জুন) পর্যন্ত চার হাজার ২২ জন হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন। এরমধ্যে সরকারি ব্যবস্থাপনার ...বিস্তারিত


জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে নিয়োগ পেলেন : রাবাব ফাতিমা

জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেটারি জেনারেল হিসেবে নিয়োগ পেলেন : রাবাব ফাতিমা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা জাতিসংঘের আন্ডার সেক্রেট...বিস্তারিত


নতুন বাজেট অর্থনীতি আরও গতিশীল করবে : অর্থমন্ত্রী

নতুন বাজেট অর্থনীতি আরও গতিশীল করবে : অর্থমন্ত্রী

ঢাকা অফিস :: : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, ২০২২-২৩ অর্থবছরের জন্য প্রস্তাবিত বাজেট বাস্তবায়নের মাধ্...বিস্তারিত



সর্বপঠিত খবর

ক্যালিফোর্নিয়ায় আন্তর্জাতিক গাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানে চট্টগ্রামের মেধাবী সন্তান প্রিয়ম চক্রবর্তীর যোগদান

ক্যালিফোর্নিয়ায় আন্তর্জাতিক গাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠানে চট্টগ্রামের মেধাবী সন্তান প্রিয়ম চক্রবর্তীর যোগদান

আমাদের ডেস্ক : : ডেস্ক রিপোর্ট :: চট্টগ্রামস্থ  লোহাগাড়ার  কৃতি সন্তান প্রিয়ম চক্রবর্তী ক্যালিফোর্নিয়ায় ...বিস্তারিত


সদরের পি এম খালী ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী কেফায়ত উল্লাহর ঈদ শুভেচ্ছা

সদরের পি এম খালী ইউনিয়নের সম্ভাব্য চেয়ারম্যান প্রার্থী কেফায়ত উল্লাহর ঈদ শুভেচ্ছা

আমাদের ডেস্ক : : সদরের পি এম খালী ইউনিয়নের বর্তমান জনপ্রিয় চেয়ারম্যান আব্দুর রহিম মাস্টারের ভাগিনা পিএমখালী ব...বিস্তারিত



সর্বশেষ খবর